1. [email protected] : Abdur Razzak : Abdur Razzak
  2. [email protected] : admin :
  3. [email protected] : BDNewsFast :
  4. [email protected] : Abdul Jolil : Abdul Jolil
  5. [email protected] : Nazmus Sawdath : Nazmus Sawdath
  6. [email protected] : Tariqul Islam : Tariqul Islam
রবিবার, ১৩ জুন ২০২১, ০২:৩০ পূর্বাহ্ন

ধুনটে মসজিদভিত্তিক প্রকল্পর শিক্ষকদের মানবেতর জীবনযাপন

  • আপডেট এর সময় : সোমবার, ২৭ এপ্রিল, ২০২০
  • ৫২৪ বার দেখা হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক
ইসলামী ফাউন্ডেশনের আওতায় সারাদেশের ন্যায় বগুড়ার ধুনট উপজেলার মসজিদ ভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রমের শিক্ষকদের ৪ মাস বেতন বকেয়া থাকায় মানবেতর জীবনযাপন করছে। এসব শিক্ষকরা বেশির ভাগই মসজিদের ইমাম, মোয়াজ্জিন-খাদেম। করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে সবাই কে বাড়িতে তারাবির নামাজ পড়তে হচ্ছে। তাতে এবার রমজানের তারাবির হাদিয়া থেকেও বঞ্চিত হচ্ছেন হাফেজ, ইমাম, মোয়াজ্জিন-খাদেমরা। ইতিমধ্য করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধে ধুনট উপজেলা লকডানের ঘোষণা দিয়েছে প্রশাসন। বিদ্যমান এ পরিস্থিতিতে এসব শিক্ষক অনাহারে-অর্ধাহারে মানবেতর জীবনযাপন করছেন। এসব শিক্ষক না পারছেন কারো কাছে বলতে, না পারছেন কোনো সাহায্য চাইতে।

নাম প্রকাশে ইচ্ছুক না কয়েক জন শিক্ষক বলেন, করোনা ভাইরাসের কারণে মসজিদ যদি আরো দীর্ঘ সময় বন্ধ থাকে তবে না খেয়ে মরা ছাড়া তাদের আর কোন উপায় থাকবেনা । তারা অবিলম্বে মসজিদভিত্তিক গণশিক্ষ প্রকল্পর বেতন ভাতা পরিশোধের জোর দাবী জানায়। তারা মসজিদ থেকে বেতন পাই দুই হাজার টাকা। মসজিদ ভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কেন্দ্র থেকে পাই সাড়ে চার হাজার টাকা। এই টাকা দিয়ে তাদের সংসার টেনেটুনে চলে। মসজিদ ভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কেন্দ্র থেকে চার মাস হলো শিক্ষকতার বেতন পাই না। করনার কারণে মসজিদও বন্ধ। মসজিদের বেতন পাবে কিনা জানেন না । প্রতি বছরের মতো এবার রমজানের তারাবির বাড়তি হাদিয়া থেকেও বঞ্চিত। কিভাবে সংসার চলছে আল্লাহ ছাড়া কেউ জানে না। তাই সরকার ও সমাজের বিত্তবান মানুষেরা যেন আমাদের কষ্টটা একটু বুঝার চেষ্টা করেন। সেই সাথে স্থানীয় প্রতিনিধিদের তাদের এই দুঃসময়ে পাশে দাড়ানোর আহবান জানান।

বিডি নিউজ ফাষ্ট.কম/নিজস্ব প্রতিবেদক/ টি.আই

নিউজটি শেয়ার করে সকলের মাঝে ছড়িয়ে দিন

এই ক্যাটাগরির আরো কিছু খবর