1. [email protected] : Abdur Razzak : Abdur Razzak
  2. [email protected] : admin :
  3. [email protected] : BDNewsFast :
  4. [email protected] : Abdul Jolil : Abdul Jolil
  5. [email protected] : Nazmus Sawdath : Nazmus Sawdath
  6. [email protected] : Tariqul Islam : Tariqul Islam
মঙ্গলবার, ২২ জুন ২০২১, ০৭:৪৭ পূর্বাহ্ন

লাশকে পুঁজি করে সাংবাদিক পরিচয়ে চাঁদাবাজির অভিযোগ শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন

  • আপডেট এর সময় : মঙ্গলবার, ১৪ জুলাই, ২০২০
  • ১৫৩ বার দেখা হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ ঝিকরগাছা উপজেলার শংকরপুর ইউনিয়নের বড় পোদাউলিয়া গ্রামের মৃত মতিয়ার রহমানের স্ত্রী হাসিনা বেগম (৫৭) গত ১০জুলাই শুক্রবার সকালে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে নিজ বাড়ীতে মারা যান। এ মৃত্যু কে কেন্দ্র করে ঐ গ্রামের মানুষ  বিবাদমান দুটি গ্রুপে বিভক্ত হয়ে পড়ে। গ্রামের একটি কুচক্রি মহল একটি তারা মৃতের একমাত্র সন্তান হাসান আলী ও তার স্ত্রী রিক্তা খাতুনকে বৃদ্ধা মহিলাকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে মর্মে দোষারোপ করতে থাকে। এক পর্যায়ে সেখানে উপস্থিত হন বাঁকড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ পরিদর্শক রিপন বালা, এসআই হাফিজুর রহমান,এএসআই হিমানিষ বিশ্বাস।

পোদাউলিয়া গ্রামের একটি কুচক্রি মহল বৃদ্ধা মহিলার মৃত দেহ দাফন করতে দিচ্ছে না মর্মে সংবাদ শুনে বাগআঁচড়া প্রেসক্লাবের সাংবাদিক শহিদুল ও সেলিম দ্রুত সেখানে হাজির হয়ে উভয় পক্ষ কে শান্ত করে লাশ দাফনের ব্যবস্থা করেন। এতে এলাকার মানুষ তাদের কে  ধন্যবাদ জানান ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। পরে কিছু চক্রান্তকারী গ্রামবাসী  এ ঘটনা থেকে টাকা না খেতে পেয়ে কিছু সাংবাদিক কে মিথ্যা তথ্য দিয়ে ঐ দিন রাতে ও পরদিন ১১জুলাই শনিবার সাংবাদিক শহিদুল ও সেলিম কে জড়িয়ে ঝিকরগাছায় বৃদ্ধার লাশ কে পুঁজি করে সাংবাদিক পরিচয়ে চাঁদাবাজির অভিযোগ শিরোনামে  বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ পরিবেশন করে। তাতে বলা হয় যে সংশ্লিষ্ট সাংবাদিকরা ৩৯ হাজার টাকা চাঁদাবাজি করেছে।

এঘটনায় যাদের কাছ থেকে টাকা নেওয়া হয়েছে মর্মে  রিপোর্ট প্রকাশিত হয় তারা এ খবর জানতে পেরে অত্যন্ত মর্মাহত হন এবং ১৪ জুলাই মঙ্গলবার সকালে বাগআঁচড়া প্রেসক্লাবের অস্থায়ী কার্যালয়ে সপরিবারে হাজির হয়ে মৃত বৃদ্ধার একমাত্র সন্তান হাসান আলী জনাকীর্ণ সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে বলেন, বাগআঁচড়া প্রেসক্লাবের সাংবাদিক শহিদুল ইসলাম ও সেলিম আহম্মেদ আমাদের উপকার করেছেন বিনিময়ে তারা একটি টাকাও গ্রহন করেন নি। সাংবাদিকদের নামে চাঁদাবাজির মানহানীকর সংবাদ প্রকাশ হয়েছে শুনে তারা সবাই মর্মাহত ও বেদনাহত হয়েছেন।

তারা সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদ্বয় নিরপরাধ ও যড়যন্ত্রের শিকার বলে উল্লেখ করে বলেন সাংবাদিকদের সাথে কোন প্রকার টাকা পয়সা লেনদেন হয়নি। তিনি সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে দুঃখ প্রকাশ করেন এবং নিউজে উল্লেখিত  সাংবাদিকদের কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করেন এবং এ ধরনের মিথ্যা, বানোয়াট, কল্পনাপ্রসূত, ভিত্তিহীন খবর প্রকাশের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ  করেন মৃত বৃদ্ধার একমাত্র সন্তান হাসান আলী। তারা সবাই দাবি করেন সাংবাদিকদের সাথে ৩৯ হাজার টাকা তো দুরে থাক ৩৯ পয়সারও কোন লেনদেন হয়নি।এসময় তার সাথে উপস্থিত ছিলেন মৃতের একমাত্র সন্তান হাসানের স্ত্রী রিক্তা খাতুন, হাসানের শ্যালক উপজেলার কুমরী গ্রামের আনিছুর রহমানের ছেলে মেহেদি হাসান সেলিম, মামা শ্বশুর উপজেলার কুলবাড়ীয়া গ্রামের খলিলুর রহমানের ছেলে বজলুর রহমান ওরফে বাবলু। সংবাদ সম্মেলনে বাগআঁচড়া প্রেসক্লাবের সভাপতি শেখ ইন্তাজুর রহমান মুকুল ও সাধারণ সম্পাদক আবু সাঈদ সহ বাগআঁচড়া প্রেসক্লাবের সকল সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

নিউজটি শেয়ার করে সকলের মাঝে ছড়িয়ে দিন

এই ক্যাটাগরির আরো কিছু খবর