1. [email protected] : Abdur Razzak : Abdur Razzak
  2. [email protected] : admin :
  3. [email protected] : BDNewsFast :
  4. [email protected] : Abdul Jolil : Abdul Jolil
  5. [email protected] : Nazmus Sawdath : Nazmus Sawdath
  6. [email protected] : Tariqul Islam : Tariqul Islam
শুক্রবার, ১৮ জুন ২০২১, ০৯:৩৫ পূর্বাহ্ন

সিংড়ায় পুত্রের লাশ দাফনে বাধা: পিতাকে প্রাণ নাশের হুমকি

  • আপডেট এর সময় : মঙ্গলবার, ১১ আগস্ট, ২০২০
  • ১৭০ বার দেখা হয়েছে


জাহিদুল ইসলাম, সিংড়া (নাটোর) প্রতিনিধিঃ নাটোরের সিংড়ায় সুদের টাকা আদায় করতে গার্মেন্টস্ কর্মীর লাশ দাফনে বাধা এবং তার পরিবার ও বৃদ্ধ পিতাকে প্রাণনাশের হুমকির দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ বিষয়ে সিংড়া থানায় সোমবার (১০/০৮/২০ইং) একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। 

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, উপজেলার ইটালী ইউনিয়নের তুলাপাড়া  বাঁশবাড়িয়া গ্রামের জমসেদ আলীর পুত্র মরহুম আব্দুর সামাদ  (৫০) ঢাকা গার্মেন্টসে শ্রমিক ছিলেন।

গত ৩১/০৭/২০২০ ইং ঈদ পালন করতে বাড়ীতে আসে।কিন্তু হঠাৎ গত ০১/০৮/২০২০ ইং বিকাল ৪.৩০ মিনিটে হৃদরোগে আক্রান্তে তার মৃত্য হয়।বাদ মাগরিব  মৃত আব্দুস সামাদের লাশ ঈদগাহ্ মাঠে দাফনের প্রস্তুতি নেয়া হলে খবর পেয়ে একই গ্রামের লোকমান হোসেনের ছেলে হাফেজ মাও.মুফতি রমিজুল আন নাসারী(৩৫) পাওয়ানা সুদ সহ প্রায় ৪০ হাজার  টাকার দাবিতে লাশে জানাযা করতে বাধা দেয়।

গ্রামবাসী ও স্থানীয়  ইউপি সদস্য আব্দুল মজিদ বিষয়টি সমাধানের আশ্বাস দিলেও মুফতি রমিজুল করিম না মানায় গ্রামবাসী জোর পূর্বক ঈদগাহ্ মাঠে জানাজার নামাজ শেষে বাঁশবাড়িয়া কেন্দ্রীয় কবরস্থানে দাফন সম্পন্ন করা হয়। কিন্তু বর্তমানে টাকার জন্য আবার চাপ দেওয়ায় মৃত আব্দুর সামাদ এর পিতা জমছেদ আলী সোমবার ১০/০৮/২০ ইং রমিজুলের বিরুদ্ধে সিংড়া থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

মরহুমের পিতা জমসেদ আলী বলেন, টাকার বিষয়টি আমার জানা ছিলো না।মুফতি রমিজুল করিম হঠাৎ আমার ছেলের জানাযা করতে বাধা দেয়। সুদ সহ আসল টাকা সে না পাইলে আমার নাতি হাফেজ সেলিম রেজা ও আমাকে মারপিট ও প্রকাশ্যে  প্রাণ নাশের হুমকি দেয়।বর্তমানে বিবাদীগণ বার বার আমার বাড়িতে সুদের টাকার জন্য চাপ দিচ্ছে। 

অভিযুক্ত মুফতি রমিজুল করিম অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন,সুদের টাকার জন্য কাউকে হুমকি ও লাশ দাফনে বাধার কোন ঘটনা ঘটেনি। ঢাকার একটি মাদ্রাসায় চাকরি করি ঈদের পরদিনই ঢাকায় এসেছি। আমি ৩বছর আগে মৃত ব্যক্তি আব্দুর সামাদের ১ বিঘা জমি লিজ বাবদ লিখিতো একটি টেম্পের মাধ্যমে ৩৩ হাজার টাকা দেই এবং তাকেই জমি  বর্গা দেই সেই সূত্রে বছরে ১০ মন ধান দেয়ার কথা থাকলেও দেয়নি। হঠাৎ সামাদের মৃত্যুর কথা শুনে জানাযায় অংশ নিয়ে গ্রামবাসির সামনে পাওয়ানা টাকার কথা বলতেই মৃত ব্যক্তির স্বজনরা অস্বীকার করে আমাকে টাকা দেবেনা বলে মারপিট করে মাঠ থেকে তাড়িয়ে দেয়।


এ বিষয়ে সিংড়া থানার ওসি নুরে আলম সিদ্দিকী বলেন, অভিযোগ পেয়েছি।তদন্ত করে দোষীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

নিউজটি শেয়ার করে সকলের মাঝে ছড়িয়ে দিন

এই ক্যাটাগরির আরো কিছু খবর