1. [email protected] : Abdur Razzak : Abdur Razzak
  2. [email protected] : admin :
  3. [email protected] : BDNewsFast :
  4. [email protected] : Abdul Jolil : Abdul Jolil
  5. [email protected] : Nazmus Sawdath : Nazmus Sawdath
  6. [email protected] : Tariqul Islam : Tariqul Islam
মঙ্গলবার, ২২ জুন ২০২১, ০৮:০৪ পূর্বাহ্ন

হাসপাতালে ভূয়া কাগজ দাখিল করে সিন্ডিকেটের অপপ্রচারঃ ক্ষোভের মুখে কর্তৃপক্ষ

  • আপডেট এর সময় : বৃহস্পতিবার, ১০ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ২২০ বার দেখা হয়েছে

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধিঃ সুনামগঞ্জ ২৫০শয্যা সদর হাসপাতালে আউট সোর্সিংয়ের মাধ্যমে জনবল নিয়োগ টেন্ডারে সিডিয়োল মোতাবেক কাগজ পত্র দাখিল করতে পারেনি তিনটি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান। যার কারনে মুল্যায়ন কমিটি থেকে বাদ পড়েন তারা। বাদ পড়ার সাথে সাথে তিনটি প্রতিষ্ঠানের সিন্ডিকেটদের মধ্যে ক্ষোভের জন্ম নিয়েছে বলে জানা যায়। বাতিল পড়ায় ঐ সমস্ত ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের মনোনীত সিন্ডিকেট বাহিনী হাসপাতালের কতৃপর্ক্ষকে জড়িয়ে মিথ্যা অপপ্রচারে ব্যস্ত সময় পারি দিচ্ছেন।

খোজঁ নিয়ে জানা যায়, গত ২৭ আগষ্ট জনবল সরবরাহকারী ৪টি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান সুনামগঞ্জ সিভিল সার্জন কার্যালয়ে টেন্ডার ড্রপিংএ অংশ গ্রহন করেন। যার মধ্যে রয়েছে ধরেশ্বরী সিকিউরিটি এন্ড ক্লিনিক সার্ভিস প্রাঃ লিমিটেড, যমুনা স্টার সেইভ গার্ড সাভির্স লিমিটেড, সরকার আউট সোসিং এন্ড সিকিউরিটিজ সার্ভিস লিমিটেড এবং অনেষ্ট সিকিউরিটি সার্ভিস কোং প্রাঃ লিঃ। এই চারটি প্রতিষ্ঠান মিলে অপেন হাউজে টেন্ডার ড্রপিং করেন এবং ঐ দিন সকল প্রতিষ্ঠানের লোকজনের সামনে কর্তৃপক্ষ টেন্ডার ওপেন করেন। প্রাথমিক ভাবে সকলের সামনে সরকার আউটসোসিং ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান সকলের সামনে কাগজ কম দেওয়ার প্রমাণ মিলে।

এ সময় সাথে সাথে অন্য দুটি প্রতিষ্ঠানের লোকেরা কতৃর্পক্ষকে বিষয়টি অবগত করেন এবং মুল্যায়ন কমিটি বিষয়টি যাচাই বাচাই করবেন বলে যানান সিভিল সার্জন ও অন্যান্য সদস্যরা।

গত ২সেপ্টম্বর  দরপত্র মুল্যায়ন কমিটির সারসংক্ষেপ প্রকাশ পায় এতে তিনটি প্রতিষ্ঠানের সঠিক কাগজপত্র না থাকায় বাতিল বলে গন্য করা হয়। যা সিভিল সার্জন কার্যালয়ে নোটিশ বোর্ডে টাঙ্গানো রয়েছে।

জানা যায়, ৭ সদস্য বিশিষ্ট দরপত্র মুল্যায়ন কমিটির স্বাক্ষর রয়েছে যার মধ্যে রয়েছেন সদস্য সচিব ডাঃ সৌমিত্র চক্রবর্তী, সদস্য ডাঃ চৌধুরী জালাল উদ্দিন মোর্শেদ, সদস্য সুচিত্রা রায়, সদস্য ডাঃ জিয়াউর রহমান, সদস্য মোঃ আশরাফুল আলম, সদস্য ডাঃ বিশ্বজিৎ গোলদার ও সিভিল সার্জ ডাঃ মোঃ শামস উদ্দিন।

যারা সকলের সম্মতিক্রমে টিকাদারী প্রতিষ্ঠানের দাখিলকৃত কাগজ পত্র যাচাই করে ধলেশ্বরী, যমুনা ও সরকার এই তিনটি প্রতিষ্ঠানকে বাতিল করে ঘোষনা করেন। এরই জেরে সিভিল সার্জন ও সঠিক কাগজপত্র দাখিলকৃত প্রতিষ্ঠানকে জড়িয়ে একটি অনলাইন পোর্টালে মিথ্যা অপপ্রচার চালাচ্ছে সরকার আউট সোসিং সিন্ডিকেটের সদস্যরা।

এছাড়াও ও সিভিল সার্জন কার্যালয়ের কর্মচারীরা ঐ সিন্ডিকেটের ক্ষোভের মুখে রয়েছেন বলে ও একটি সুত্রে জানা যায়।

এ ব্যপারে অনেষ্ট সিকিউরিটি সার্ভিস কম্পানির পরিচালক মো: নাসির উদ্দিন জানান, আমার প্রতিষ্ঠান গত বছর কাজ পেয়েছিল এবং সততার সাথে আমার কর্মীরা করোনা মোকাবেলা করে দিন রাত মানুষের সেবা প্রদান করেছে। আমার প্রতিষ্ঠানের সকল কর্মীদের প্রত্যেক মাসের বেতন ভাতাদি সঠিক সময়ে পরিশোধ করেছি। যার জন্য আমার স্বাস্থ্য কর্মীরা এবং স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা আমার প্রতিষ্ঠানের প্রতি ধন্যবাদ ও সন্তোষ প্রকাশ করেছেন। স্থানীয় ও জাতীয় প্রিন্ট পত্রিকায় এবং অনলাইন প্রোর্টালে প্রকাশ রয়েছে । আমি এ বছর ও টেন্ডার ড্রপ করেছি আমার সকল ধরনের চাহিত কাগজ পত্র রয়েছে।  যার কাগজপত্র সঠিক থাকবে তাকেই কতৃর্পক্ষ কাজ দিবেন বলে আমার বিশ্বাস। কে কি প্রচার করবে সেটা বিষয় না, যার কাগজ সঠিক থাকবে সেই কাজ পাবে।

এ ব্যাপারে সুনামগঞ্জ জেলা সিভিল সার্জন ডাঃ শামস উদ্দিনের কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান, আমাকে জড়িয়ে কাল্পনিক তথ্য বিহীন অপপ্রচার এটি একটি হাস্যকর। জননেত্রী শেখ হাসিনা এ দেশের স্বাস্থ্য সেবার মান উন্নয়নে দিন রাত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন এবং আমাদেরকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে মানুষের সেবা প্রদানের জন্য অনিয়ম করার জন্য নয়।

নিউজটি শেয়ার করে সকলের মাঝে ছড়িয়ে দিন

এই ক্যাটাগরির আরো কিছু খবর